Master Circular Regarding Submission of Data for Integrated Supervision System(ISS). Ref: ISMD Circular No. 01 dated 07-Sep-2020.

ইন্টিগ্রেটেড সুপারভিশন ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট
বাংলাদেশ ব্যাংক
প্রধান কার্যালয়
ঢাকা।

আইএসএমডি সার্কুলার নং-১ ২৩ ভাদ্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
তারিখ ঃ—————–
০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ

প্রধান নির্বাহী
বাংলাদেশে কার্যরত সকল তফসিলি ব্যাংক।   

প্রিয় মহোদয়,

ইন্টিগ্রেটেড সুপারভিশন সিস্টেম (আইএসএস) এ তথ্য দাখিল সংক্রান্ত মাস্টার সাকুর্লার।

ব্যাংকিং সেক্টরে সুপারভিশন কার্যক্রম জোরদার এবং অধিকতর ফলপ্রসূ করার লক্ষ্যে ইন্টিগ্রেটেড সুপারভিশন ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট (আইএসএমডি) কতৃর্ক নির্ধারিত ফরম্যাটে ইন্টিগ্রেটেড সুপারভিশন সিস্টেম (আইএসএস)-এ তথ্য দাখিলের জন্য তফসিলি ব্যাংকসমূহকে বিভিন্ন সময়ে নির্দেশনা প্রদান করা হয়। এতদুদ্দেশ্যে পত্র নংঃ ডিবিআই-২(এমআইএস ও আরবিআই উঃবিঃ)/২২/২০১৩-৩৬৭, তারিখঃ ০৪/০৮/২০১৩; ডিবিআই-২ সার্কুলার নং-১, তারিখঃ ২৪/০২/২০১৪; পত্র নংঃ ডিবিআই-২(এমআইএস ও আরবিআই সেল)/২২/২০১৪-৫৫৩, তারিখঃ ২০/০৫/২০১৪; আইএসএমসি সার্কুলার লেটার নং-১, তারিখঃ ২৫/০২/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-৯৩, তারিখঃ ০৮/০৩/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০৭/২০১৫-১৫, তারিখঃ ০৬/০৪/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-১৮৭, তারিখঃ ২৮/০৫/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-২০০, তারিখঃ ০২/০৬/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-৩৮৪, তারিখঃ ০৭/০৭/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-৩৯২, তারিখঃ ১২/০৭/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০৭/২০১৫-৪০৭, তারিখঃ ৩০/০৭/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-৭৫০, তারিখঃ ০৬/১০/২০১৫; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৫-৯৫০, তারিখঃ ০২/১১/২০১৫; আইএসএমসি সার্কুলার লেটার নং-১, তারিখঃ ২০/০১/২০১৬; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৬-২৯৭, তারিখঃ ০৮/০৬/২০১৬; পত্র নংঃ আইএসএম সেল/০২/২০১৬-৫৬৪, তারিখঃ ২৫/০৯/২০১৬; পত্র নংঃ আইএসএমডি/০২/২০১৭-১৭৩, তারিখঃ ১৬/০২/২০১৭; পত্র নংঃ আইএসএমডি/০২/২০১৭-৩৫০, তারিখঃ ১০/০৪/২০১৭; পত্র নংঃ আইএসএমডি/০৭/২০১৭-১১৪৪, তারিখঃ ১৯/১০/২০১৭; পত্র নংঃ আইএসএমডি/০২/২০১৯-৪৬০, তারিখঃ ১৫/০৫/২০১৯ ইসু্য করা হয়। এক্ষণে, ইন্টিগ্রেটেড সুপারভিশন সিস্টেমের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকের সুপারভিশন কার্যক্রমকে আরও গতিশীল, সুশৃঙ্খল ও সুসংহত করার লক্ষ্যে ইতঃপূর্বে ইসু্যকৃত সাকুর্লার/সাকুর্লার লেটার/পত্রসমূহ পর্যালোচনা ও একীভ‚ত করে নিম্নোক্ত নির্দেশনাবলী সম্বলিত একটি মাস্টার সাকুর্লার ইস্যু করা হলো।  

১. আইএসএস তথ্য প্রদান সংক্রান্তঃ

১.১  তফসিলি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ও শাখাসমূহ কর্তৃক মাসিক ভিত্তিতে ISS Form 1 & 2 এ নিভুর্লভাবে তথ্যসমূহ সন্নিবেশকরত ফরমসমূহ পরবর্তী মাসের ২৫ তারিখের মধ্যে (২৫ তারিখ সাপ্তাহিক বা সরকারি ছুটি থাকলে পূর্ববর্তী কর্মদিবসে) বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েব পোর্টালে (https://ereturns.bb.org.bd) আপলোড করে এ বিভাগকে অবহিত করতে হবে।

১.২ নতুন শাখার ক্ষেত্রে আইএসএস তথ্য দাখিলের জন্য এসবিএস কোড প্রাপ্তির ৩০ কর্মদিবসের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েব পোর্টালে শাখার নিবন্ধন সম্পন্নকরত যথারীতি তথ্য দাখিল করতে হবে।

১.৩  আইএসএস-এ তথ্য প্রদানের জন্য নির্ধারিত ফর্মসমূহ (ISS Form 1 & 2) উল্লিখিত লিংকে পাওয়া যাবে। তথ্য পূরণের ক্ষেত্রে উক্ত ফর্মসমূহে বর্ণিত নির্দেশনাবলী অনুসরণীয় হবে।

১.৪ ব্যাংকের শাখাসমূহ ISS Form 2 অনুসারে প্রতি মাসে তথ্য তাদের প্রধান কার্যালয়ের আইএসএস ডেস্ক-এ প্রেরণ করবে। আইএসএস ডেস্ক শাখাসমূহ হতে প্রাপ্ত তথ্য যাচাই-বাছাইপূর্বক এর সঠিকতা নিশ্চিতকরত শাখাসমূহকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করবে এবং শাখাসমূহকে উক্ত নির্দেশনার আলোকে সংশোধিত ISS Form 2 (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ১.১ নম্বর অনুচ্ছেদে উল্লিখিত সময়সীমার মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েব পোর্টালে আপলোড করতে হবে।

১.৫ আইএসএস ফরমসমূহের এক্সেল ও সিএসভি ফরম্যাটে প্রস্তুতকৃত ব্যাকআপ কপি প্রতিটি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে স্থাপিত ‘আইএসএস ডেস্ক’ ও সংশ্লিষ্ট শাখায় যথাযথভাবে সংরক্ষণ করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক পরিদর্শন দল পরিদর্শনকালে তা পরীক্ষা করবে।

১.৬  বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েব পোর্টালে ব্যাংক কর্তৃক আপলোডকৃত ফরমসমূহে প্রদত্ত তথ্যই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে এবং পোর্টাল ব্যতীত ভিন্ন কোন মাধ্যমে প্রেরিত তথ্য গৃহীত হবে না।

১.৭ অনিবার্য কারণবশত নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তথ্য/বিবরণী দাখিল করা সম্ভব হবে না মর্মে অনুমিত হলে তা রিপোর্টিং মাসের ২০ তারিখের মধ্যে এ বিভাগকে লিখিতভাবে অবহিত করতে হবে। তবে, তথ্য/বিবরণী দাখিলের বারংবার এরূপ সময় বৃদ্ধির আবেদন অভ্যাসগত হলে তা বিবেচনা করা হবে না।

১.৮ আইএসএস-এ দাখিলকৃত (শাখা এবং প্রধান কার্যালয়ের) তথ্যের নিভুর্লতা নিশ্চিতকরণে সংযোজনী-১ এ বর্ণিত নমুনা মোতাবেক সংশ্লিষ্ট মাসের প্রত্যয়নপত্র পরবর্তী মাসের ৩০ তারিখের মধ্যে এ বিভাগে দাখিল করতে হবে।

২. ঋণ শ্রেণীকরণ বিবরণী ও নিরীক্ষিত বার্ষিক প্রতিবেদন সংক্রান্ত ঃ

২.১  ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে ব্যাংকের শাখাসমূহ সিএল বিবরণী (ফরম-১ থেকে ৫) এক্সেল ফরম্যাটে প্রস্তুতকরত সফট্কপি তাদের প্রধান কার্যালয়ে প্রেরণ করবে। প্রধান কার্যালয়কে সকল শাখা থেকে প্রাপ্ত ত্রৈমাসিক সিএল বিবরণীর সফট্কপি পরবর্তী মাসের ২৫ তারিখের মধ্যে সিডি/ডিভিডি এর মাধ্যমে এ বিভাগে দাখিল করতে হবে।

২.২  ব্যাংকের নিরীক্ষিত বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন (Audited Annual Report) প্রকাশের ১৫ (পনের) কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদনের ০১(এক) কপি এ বিভাগে প্রেরণ করতে হবে। আইএসএস-এ দাখিলকৃত ডিসেম্বর ভিত্তিক (রাকাব ও বিকেবি’র ক্ষেত্রে জুন ভিত্তিক) তথ্যের সাথে নিরীক্ষিত বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনে প্রদর্শিত তথ্যের কোনরূপ গড়মিল পরিলক্ষিত হলে তার সমন্বিত প্রতিবেদন (Adjustment Report) এবং নিরীক্ষিত বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রস্তুতকৃত ISS Form 1 এর সফ্টকপি (এক্সেল ও সিএসভি) প্রতিবেদনটি প্রকাশের ১৫ (পনের) কর্মদিবসের মধ্যে এ বিভাগে দাখিল করতে হবে। 
 
৩. আইএসএস ডেস্ক ও যোগাযোগ সংক্রান্ত ঃ

৩.১  আইএসএস সংক্রান্ত তথ্য ব্যবস্থাপনা ও যোগাযোগ কার্যক্রম যথাযথভাবে সম্পাদনের উদ্দেশ্যে প্রত্যেক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে স্থাপিত ‘আইএসএস ডেস্ক’ এর প্রধান হিসেবে প্রধান নির্বাহীর নিচে অন্যূন চতুর্থ স্তরের পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তাকে বহাল করতে হবে। এছাড়া, ‘আইএসএস ডেস্ক’ এ বহালকৃত কোন কর্মকর্তা বদলী বা অন্য কোন কারণে পরিবর্তিত হলে নতুন কর্মকর্তার নাম, পদবী, ইমেইল অ্যাড্রেস, মোবাইল ও টেলিফোন নম্বর পরিবর্তনের ১৫ (পনের) কর্মদিবসের মধ্যে এ বিভাগকে অবহিত করতে হবে।

৩.২ তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীগণের জন্য ইতঃপূর্বে সৃষ্ট ব্যক্তি নিরপেক্ষ স্থায়ী ইমেইল অ্যাড্রেস-এর মাধ্যমে আইএসএস সংক্রান্ত যোগাযোগ অব্যাহত থাকবে।

৩.৩  ব্যাংক কতৃর্ক আইএসএস রিপোর্টিং এর নিমিত্তে ওয়েব পোর্টালের ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ডের কাস্টডিয়ান হবেন প্রধান কার্যালয়ের ক্ষেত্রে প্রধান নির্বাহী/সিএফও/আইএসএস ডেস্ক প্রধান/আইসিসি প্রধান/এমআইএস প্রধান এবং শাখার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট শাখা ব্যবস্থাপক/শাখার প্রধান। আইএসএস-এ প্রদত্ত তথ্যের সঠিকতার/নিভুর্লতার দায়-দায়িত্ব কাস্টডিয়ানদের উপর বর্তাবে।   
  
৪. দন্ড সংক্রান্ত ঃ

৪.১  নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তথ্য/বিবরণী দাখিলে ব্যর্থ হলে এবং/অথবা দাখিলকৃত তথ্য/বিবরণীতে ভুল/অসম্পূর্ণ তথ্য প্রদান করা হলে ব্যাংক কোম্পানী আইন, ১৯৯১ (২০১৮ সাল পর্যন্ত সংশোধিত) এর ১০৯ ধারার বিধান বলে অর্থ দন্ড আরোপ/শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
 
৫. অন্যান্য ঃ

৫.১ তফসিলি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ও শাখাসমূহ কর্তৃক আইএসএস-এ প্রদত্ত তথ্যের নিভুর্লতা যাচাইয়ের জন্য প্রত্যেক ব্যাংকে প্রবর্তিত Reporting Information Validation Tool/Reporting Solution এর সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

৫.২ এ সার্কুলারের সাথে সংযুক্ত “Guidelines for In-house Training on ISS Reporting” মোতাবেক তফসিলি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ও শাখাসমূহের কর্মকর্তাদের জন্য ইন-হাউজ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে এবং প্রতি বছরের প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত তথ্যের হার্ডকপি (সংযোজনী-৩ মোতাবেক) ও সফ্টকপি ইমেইলের মাধ্যমে (gm.ismd@bb.org.bd) পরবর্তী বছরের ২০ জানুয়ারী তারিখের মধ্যে এ বিভাগে দাখিল করতে হবে।

ব্যাংক কোম্পানী আইন, ১৯৯১ (২০১৮ সাল পর্যন্ত সংশোধিত) এর ৩৬ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ সার্কুলার ইস্যু করা হলো যা অবিলম্বে কার্যকর হবে। ইতঃপূর্বে ইসু্যকৃত এতদ্সংক্রান্ত সকল সাকুর্লার/সাকুর্লার লেটার/পত্রের নির্দেশনাবলী বাতিল মর্মে গণ্য হবে।

 

সংযোজনীঃ  ১। প্রত্যয়নপত্রের নমুনা;
              ২। Guidelines for In-house Training on ISS Reporting; এবং
              ৩। প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত তথ্যের ছক।
আপনাদের বিশ্বস্ত,
 
(নূর মোহাম্মদ শেখ)
মহাব্যস্থাপক (চলতি দায়িত্বে)
ফোন ঃ ৯৫৩০৭৩৫

 

 

Source: https://bb.org.bd/mediaroom/circulars/ismc/sep072020ismc01.pdf

Related Circulars :


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *