REPRESENTATION OF PRIVATE & FOREIGN BANKS IN THE MEETING OF DISTRICT AGRICULTURE CREDIT COMMITTEE UNDER LEAD BANK SYSTEM. REF: ACD CIRCULAR NO. 12 DATED 09.06.2010.

মাঠ পর্যায়ে কৃষি/পল্লী ঋণ কার্যক্রমের সফল বাস্তবায়ন ও সমন্বয়ের উদ্দেশ্যে লীড ব্যাংক পদ্ধতির আওতায় জেলা কৃষি ঋণ কমিটি কার্যকর ভূমিকা পালন করে আসছে। এ পদ্ধতির আওতায় কোন্ ইউনিয়নে কোন্ রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক বা বিশেষায়িত ব্যাংক শাখা কৃষি ঋণ বিতরণ করবে তা নির্দিষ্ট করে দেয়া আছে। পাশাপাশি স্থানীয় পর্যায়ে কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ ও আদায় কার্যক্রম তদারকী এবং সমন্বয়ের উদ্দেশ্যে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ও বিশেষায়িত ব্যাংকসমূহ এবং কৃষির সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে কৃষি ঋণ কমিটি গঠন ও সভা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে একটি কার্যকর ব্যবস্থাও এই পদ্ধতির আওতায় চালু আছে। প্রত্যেক জেলার জেলা প্রশাসক হচ্ছেন সংশ্লিষ্ট জেলার কৃষি ঋণ কমিটির সভাপতি এবং প্রত্যেক জেলায় সুনির্দিষ্ট একটি ব্যাংক লীড ব্যাংক হিসাবে স্ব স্ব জেলার কৃষি ঋণ কমিটির সাচিবিক দায়িত্ব পালন করে থাকে। জেলা কৃষি ঋণ কমিটি মাসিক ভিত্তিতে সভা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্ব-স্ব জেলার কৃষি/পল্লী ঋণ সংক্রান্ত তদারকী এবং সমন্বয়ের কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

বর্তমানে বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকসহ বাংলাদেশে কার্যরত সকল তফসিলী ব্যাংকের জন্য কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ বাধ্যতামূলক হওয়ায় লীড ব্যাংক পদ্ধতির আওতায় যে ইউনিয়ন যে ব্যাংক শাখার অনুকূলে বরাদ্দকৃত সেই ব্যাংক শাখা হতে অনাপত্তিপত্র নিয়ে উক্ত এলাকায় বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকসমূহের কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণের সুযোগ রয়েছে এবং তারা বিতরণও করছে।

জেলা পর্যায়ে বেসরকারী ব্যাংকসমূহের অনেকের শাখা থাকলেও অনেক বেসরকারী ব্যাংকের অনেক জেলাতে শাখা নেই। বিদেশী ব্যাংকসমূহের শাখা নেটওয়ার্ক আরও সীমিত। বর্তমানে বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকসমূহ তাদের শাখার মাধ্যমে এবং/অথবা মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরী অথরিটির অনুমোদনপ্রাপ্ত ক্ষুদ্র ঋণ প্রতিষ্ঠান (MFIs) সমূহের সাথে পার্টনারশিপের মাধ্যমে কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ করছে। আগামীতে কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ কার্যক্রমে বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকসমূহের অংশগ্রহণের ব্যাপ্তি আরও বাড়বে বলে ধারণা করা যায়।

সকল ব্যাংকের অংশগ্রহণে কৃষি ঋণ কার্যক্রম পরিচালিত হওয়ার বর্তমান প্রেক্ষাপটে কৃষি ঋণ কার্যক্রমকে আরও সমন্বিত ও কার্যকর করার জেলা কৃষি ঋণ কমিটিতে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ও বিশেষায়িত ব্যাংকসমূহের পাশাপাশি বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকমূহের প্রতিনিধিত্ব থাকা প্রয়োজন।

এমতাবস্থায়, লীড ব্যাংক পদ্ধতির লক্ষ্য, উদ্দেশ্য এবং বিদ্যমান কাঠামোর অন্যান্য সকল দিক অপরিবর্তিত রেখে জেলা কৃষি ঋণ কমিটিতে বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকসমূহের প্রতিনিধিত্বের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে যা নিমেড়বাক্তভাবে কার্যকর হবেঃ-

কোনো জেলায় সংশ্লিষ্ট বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকের শাখার অবস্থা – উক্ত জেলায় সংশ্লিষ্ট বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকের কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ কার্যক্রমে অংশগ্রহণের অবস্থা – উক্ত জেলার কৃষি ঋণ কমিটিতে সংশ্লিষ্ট বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকের প্রতিনিধিত্ব|

ক    সংশ্লিষ্ট জেলায় যে ব্যাংকের শাখা রয়েছে

সংশ্লিষ্ট জেলায় শুধুমাত্র নিজস্ব শাখার মাধ্যমে কৃষি/পল্লী ঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। সংশ্লিষ্ট জেলায় ব্যাংকের শাখা/জোনের প্রধান উক্ত জেলার ‘জেলা কৃষি ঋণ কমিটি’তে প্রতিনিধিত্ব করবেন।

নিজস্ব শাখার পাশাপাশি ব্যাংকটির উদ্যোগে Credit Wholesaling এর আওতায় ক্ষুদ্র ঋণ প্রতিষ্ঠান (MFIs) এর সাথে পার্টনারশিপের মাধ্যমেও সংশ্লিষ্ট জেলায় কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ করা হয়। সংশ্লিষ্ট জেলায় ব্যাংকের শাখা/জোনের প্রধান নিজস্ব শাখা/জোনের পাশাপাশি উক্ত জেলায় MFIs পার্টনারশিপ সংশ্লিষ্ট কৃষি/পল্লী ঋণের তথ্যসহ ‘জেলা কৃষি ঋণ কমিটি’তে প্রতিনিধিত্ব করবেন।

নিজস্ব শাখার মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট জেলায় কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ করা হয় না তবে, ব্যাংকটির উদ্যোগে Credit Wholesaling এর আওতায় ক্ষুদ্র ঋণ প্রতিষ্ঠান (MFIs)-এর সাথে পার্টনারশিপের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট জেলায় কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ করা হয়। সংশ্লিষ্ট জেলায় ব্যাংকের শাখা/জোনের প্রধান উক্ত জেলায় MFIs পার্টনারশিপ সংশ্লিষ্ট কৃষি/পল্লী ঋণের তথ্যসহ ‘জেলা কৃষি ঋণ কমিটি’তে প্রতিনিধিত্ব করবেন।

খ    সংশ্লিষ্ট জেলায় যে ব্যাংকের কোনো শাখা নেই

সংশ্লিষ্ট জেলায় নিজস্ব শাখা না থাকলেও ব্যাংকটির উদ্যোগে Credit Wholesaling এর আওতায় ক্ষুদ্র ঋণ প্রতিষ্ঠান (MFIs)-এর সাথে পার্টনারশিপের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট জেলায় কৃষি/পল্লী ঋণ বিতরণ করা হয়। ব্যাংক কর্তৃক মনোনীত সংশ্লিষ্ট ক্ষুদ্র ঋণ প্রতিষ্ঠান (MFIs)‐এর স্থানীয় সমন্বয়কারী ব্যাংকটির পক্ষে ‘জেলা কৃষি ঋণ কমিটি’তে প্রতিনিধিত্ব করবেন।

সংশ্লিষ্ট বেসরকারী ও বিদেশী ব্যাংকসমূহ প্রত্যেক জেলার ‘জেলা কৃষি ঋণ কমিটি’তে তাদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতকরণের উদ্দেশ্যে উপরোক্ত নির্দেশনার আলোকে উপযুক্ত প্রতিনিধি মনোনীত করে সংশ্লিষ্ট লীড ব্যাংকসমূহ (জেলাওয়ারী লীড ব্যাংকের তালিকা সংযুক্ত)-কে জানিয়ে তা অত্র বিভাগকে অবহিত করবে।

উপরোক্ত নির্দেশ ২০১০-২০১১ অর্থবছরের শুরু অর্থাৎ ০১.০৭.২০১০ তারিখ থেকে কার্যকর হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *