DETERMINATION OF TARGET FOR DISBURSEMENT OF AGRICULTURAL & RURAL CREDIT AND ITS IMPLEMENTATION. REF: ACFID CIRCULAR LETTER NO. 01 DATED 05.01.2015.

শিরোনামোক্ত বিষয়ে অত্র বিভাগ কর্তৃক জরীকৃত ACFID CIRCULAR NO. 01 DATED 16.05.2011 – এর প্রতি আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাচ্ছে। উক্ত সার্কুলারটি নিম্নরূপে সংশোধন করা হলোঃ

ক) কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণের ল্যমাত্রা শতভাগ অর্জনের স্বার্থে প্রত্যেক ব্যাংক মাসিক ভিত্তিতে স্ব-স্ব ব্যাংকের আনুপাতিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের অগ্রগতি শাখা/আঞ্চলিক অফিস/প্রধান কার্যালয় পর্যালোচনা করবে। কোন ত্রৈমাসিকে আনুপাতিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হলে, অনর্জিত অংশ সংশ্লিষ্ট ব্যাংক পরবর্তী ত্রৈমাসিকে বাংলাদেশ ব্যাংকে এক বছরের জন্য জমা করতে পারে।

খ) অর্থবছর শেষে কোনো ব্যাংক কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে না পারলে; অনর্জিত অংশের ৩% সমপরিমান অর্থ বাংলাদেশ ব্যাংকের নিকট বাধ্যতামূলকভাবে জমা রাখতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক উক্ত জমাকৃত অর্থের উপর কোনরূপ সুদ প্রদান করবেনা। তবে, ব্যাংকের মোট কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ লক্ষ্যমাত্রা যা হোক না কেন, তাদের মোট কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ পূর্ববর্তী অর্থবছরের ৩১ মার্চ তারিখের অবস্থা ভিত্তিক মোট ঋণ ও অগ্রীমের ২.৫% বা বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নির্ধারিত বার্ষিক লক্ষ্যমাত্রার সমান/বেশী হলে তাদের ক্ষেত্রে প্রতিকারমূলক এ ব্যবস্থা প্রযোজ্য হবে না।

গ) কোন ব্যাংক যদি পরবর্তী অর্থবছরের লক্ষ্যমাত্রার সাথে বিগত অর্থবছরের লমাত্রার অনর্জিত অংশ সম্পূর্ণ/আংশিক বিতরণ করতে পারে, সেক্ষেত্রে জমাকৃত/কর্তনকৃত অর্থ সম্পূর্ণ বা আনুপাতিক হারে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কে ফেরত প্রদান করা হবে।

এছাড়া ACFID Circular No. 01 dated 16.05.2011 এর অনুচ্ছেদ নং ক, ঙ এবং চ এ বর্ণিত বিষয়াবলীসহ অন্যান্য বিষয়াবলী অপরিবর্তিত থাকবে।

এ নির্দেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।

অনুগ্রহপূর্বক প্রাপ্তি স্বীকার করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *